সাকিব আল হাসান বায়ো/উইকি, জন্ম, বয়স, উচ্চতা, পারিবারিক জীবন, ধন-সম্পদ

সাকিব আল হাসান বায়ো/উইকি, জন্ম, বয়স, উচ্চতা, পারিবারিক জীবন, ধন-সম্পদ,ক্রিকেট ক্যারিয়ার  এবং সংক্ষিপ্ত জীবনী উল্লেখিত বিষয়গুলি সম্পর্কে জানতে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হলো।এছাড়া এই ক্রিকেটারের জীবনে ঘটে যাওয়া সকল ঘটনাগুলি আমরা আপনাদের জন্য সুন্দর করে উপস্থাপন করলাম। 

সাকিব আল হাসান বায়ো/উইকি

পুরো নাম: সাকিব আল হাসান
জন্ম তারিখ: 24 মার্চ, 1987
জন্মস্থান: মাগুরা, খুলনা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাঃ বাংলাদেশী
খেলার ভূমিকা: অলরাউন্ডার (বাঁহাতি ব্যাটসম্যান এবং ধীরগতির বাঁহাতি অর্থোডক্স বোলার)

জীবনী:

সাকিব আল হাসান হলেন একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার যাকে খেলাধুলার ইতিহাসে অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তিনি বাংলাদেশের খুলনা বিভাগের মাগুরা জেলায় 24 মার্চ, 1987 সালে জন্মগ্রহণ করেন। সাকিবের অসাধারণ ক্রিকেটিং দক্ষতা, চাপের মধ্যে পারফর্ম করার ক্ষমতা এবং ধারাবাহিকতা তাকে সারা বিশ্বের ক্রিকেট ভক্তদের হৃদয়ে একটি বিশেষ স্থান অর্জন করেছে।

পেশাগত বৈশিষ্ট্য:

অভিষেক:

সাকিব বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক করেন ৬ আগস্ট ২০০৬, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একটি ওডিআইতে।

অলরাউন্ড শ্রেষ্ঠত্ব:

সাকিব ব্যাটসম্যান এবং বোলার উভয় হিসেবেই তার অসাধারণ দক্ষতার জন্য পরিচিত। তিনি একজন বাঁ-হাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান যার শক্ত কৌশল এবং প্রয়োজনে আক্রমণাত্মক ইনিংস খেলার ক্ষমতা রয়েছে। একজন বোলার হিসেবে, তার ধীরগতির বাঁহাতি অর্থোডক্স ডেলিভারি ক্রমাগত ব্যাটসম্যানদের সর্বস্তরে সমস্যায় ফেলেছে।

আইসিসি র‍্যাঙ্কিং:

তার ক্যারিয়ারের বিভিন্ন সময়ে, সাকিব আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) দ্বারা ওডিআই এবং টেস্ট উভয় ক্রিকেটেই বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার হিসাবে স্থান পেয়েছে।

রেকর্ডধারী:

তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অসংখ্য রেকর্ডের অধিকারী, যার মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে 10,000 রান করা এবং বিভিন্ন ফরম্যাটে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে 600 উইকেট নেওয়া।

ধারাবাহিকতা:

ফরম্যাটে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স দেওয়ার সাকিবের ক্ষমতা তাকে সব ধরনের ম্যাচেই বাংলাদেশের জন্য একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ে পরিণত করেছে।

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ:

তিনি আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের জন্য একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, ব্যাট এবং বল উভয় ক্ষেত্রেই অবদান রেখেছেন। তিনি 2019 আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন।
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল): সাকিব বিভিন্ন দলের হয়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (আইপিএল) খেলেছেন, গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি মঞ্চে তার দক্ষতা প্রদর্শন করেছেন।

বিতর্ক এবং স্থগিতাদেশ:

দুর্নীতির অভিযোগ নিষ্পত্তি করতে ব্যর্থ হওয়ায় 2019 সালে ক্রিকেট থেকে এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হন সাকিব আল হাসান। পরে নিষেধাজ্ঞা কমিয়ে নয় মাস করা হয়, যে সময়ে তিনি আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশ নিতে পারেননি। সাসপেনশন কাটিয়ে 2020 সালে ক্রিকেট মাঠে ফিরে আসেন তিনি।

সাকিব আল হাসানের  জন্ম, বয়স, উচ্চতা এবং পারিবারিক জীবন

সাকিব আল হাসান ১৯৮৭  সালে ২৪  মার্চ মাগুরা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মাশরুর রেজা বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা। এবং মাতা শিরীন শারমিন একজন গৃহিণী। এছাড়া সাকিব-আল-হাসান একজন ক্রিকেট পাগল মানুষ যার প্রতিশ্রুতিতে,

আজকে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান হিসেবে পরিচিতি লাভ  করেছেন। এছাড়া তার বর্তমান বয়স ৩১ বছর চলছে।  তার উচ্চতা 5 ফুট 6 ইঞ্চি। তার স্ত্রীর নাম উম্মে  আহাম্মেদ শিশির।এছাড়া পারিবারিক জীবনে তার বর্তমান দুটি সন্তান রয়েছে এবং সব মিলিয়ে তিনি অনেক ভালো আছে।

ব্যক্তিগত জীবন:

সাকিব আল হাসান তার ব্যক্তিগত জীবন তুলনামূলকভাবে ব্যক্তিগত রাখেন। তিনি উম্মে আহমেদ শিশিরের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন এবং এই দম্পতির একসাথে একটি কন্যা রয়েছে।

ক্রিকেটে সাকিব আল হাসানের প্রভাব তার পরিসংখ্যানের বাইরেও প্রসারিত। তিনি ছিলেন বাংলাদেশের উদীয়মান ক্রিকেটারদের অনুপ্রেরণা এবং দেশের ক্রিকেটের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। তার কৃতিত্ব, বহুমুখীতা এবং উত্সর্গ তাকে একজন সত্যিকারের ক্রিকেট কিংবদন্তি করে তুলেছে এবং তিনি খেলাধুলায় একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব হিসেবে রয়ে গেছেন।

সাকিব আল হাসানের ধন-সম্পদ

সাকিব আল হাসান ক্রিকেট ক্যারিয়ার জীবনে তিনি এমন একজন সফল ব্যক্তি যার ফলশ্রুতিতে পৃথিবীজুড়ে তার খ্যাতি এবং সুনাম রয়েছে এবং সেই অনুপাতে বর্তমান বাংলাদেশের একজন সেরা ধনী ব্যক্তি হচ্ছেন সাকিব আল হাসান।2021 সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী সাকিব আল হাসানের ধন সম্পদের পরিমাণ 40 মিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা বাংলাদেশের সকল ক্রিকেটারদের চাইতে সবচাইতে বেশি। 

ক্রিকেট ক্যারিয়ার জীবন

সাকিব আল হাসানের ক্রিকেট ক্যারিয়ার জীবন মাত্র 12 বছর বয়স থেকেই তাঁর ক্রিকেট খেলা শুরু এবং শুরু থেকেই বিভিন্ন ক্লাব পাড়ায়-মহল্লায় বিভিন্নভাবে তিনি সর্বোচ্চ ভালো খেলে সর্বোচ্চ সুনাম অর্জন করে। তারপর 15 বছর বয়সে তিনি জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পেয়ে থাকেন।

সেখান থেকেই তার ক্যারিয়ার জীবন শুরু অর্থাৎ তিনি ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি এবং টেস্ট ম্যাচে সাফল্যের ধারাবাহিকতায় সর্বোচ্চ স্থান তৈরি করে নিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে। এবং সেই সাথে তার ব্যাটিং বোলিং এবং ফিল্ডিং সকল ক্যারিয়ারে তিনি পৃথিবীর একজন শ্রেষ্ঠ অলরাউন্ডার হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। ক্যারিয়ার জীবনে জাতীয় দলের হয়ে প্রত্যেকটি খেলায় অংশগ্রহণ করে যে সাফল্য অর্জন করেছেন।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী পৃথিবীতে খুব কম সংখ্যক এরকম মানের অধিকারী খেলোয়াড় রয়েছে।  ২০১৫সালে তিনি টেস্ট ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টিতে তিন ফরমেটে বিশ্বের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার হিসাবে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। ২০১৭ সালে অক্টোবর মাসে ওয়ানডেতে তিনি ৫০০০ রান এবং ২০০  মাইলফলক স্পর্শ করেন।মাত্র ১৭৮  টি  ওয়ান ডে ম্যাচ থেকে। বিশ্বে একমাত্র ব্যক্তি তিনি হচ্ছেন সাকিব আল হাসান এর কৃতিত্ব অর্জন করেন। যা আর অন্য কারো পক্ষে অর্জন করা সম্ভব  হয় নাই। Refarens-sportsnet24

অলরাউন্ড অবদান:

  • সাকিব দ্রুত নিজেকে একজন নির্ভরযোগ্য অলরাউন্ডার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন, ব্যাট ও বল উভয় ক্ষেত্রেই গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে সক্ষম।
  • ব্যাটিং ইনিংস নোঙর করার, আক্রমণাত্মক শট খেলা এবং বাঁহাতি স্পিন দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নেওয়ার দক্ষতার জন্য তিনি পরিচিত হয়ে ওঠেন।

টেস্ট ক্রিকেট:

  • বাংলাদেশ টেস্ট দলে একজন লিঞ্চপিন ছিলেন সাকিব। তিনি ব্যাট হাতে ধারাবাহিক পারফরমার এবং প্রায়শই বাংলাদেশের সেরা টেস্ট ক্রিকেটারদের একজন হিসেবে বিবেচিত হন।
  • তিনি বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার যিনি টেস্ট ক্রিকেটে 1000 রান এবং 100 উইকেট পান।

ওডিআই ক্রিকেট:

  • সাকিবের ওয়ানডে ক্যারিয়ার তার বহুমুখী প্রতিভা দ্বারা চিহ্নিত করা হয়েছে। তিনি ব্যাটিং অর্ডারে বিভিন্ন পজিশনে ব্যাট করেন এবং ব্যাট ও বল উভয় দিয়েই ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্স দেন।
  • তার ব্যতিক্রমী পারফরম্যান্সের স্বীকৃতিস্বরূপ 2009 সালে তিনি আইসিসির বর্ষসেরা ওডিআই খেলোয়াড় নির্বাচিত হন।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট:

  • বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন সাকিব। তিনি মিডল অর্ডারে স্থিতিশীলতা প্রদান করেন এবং প্রায়শই গুরুত্বপূর্ণ ওভার বল করেন।

টি-টোয়েন্টি লিগ:

  • ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল), বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) সহ বিশ্বের বিভিন্ন টি-টোয়েন্টি লিগে অংশ নিয়েছেন সাকিব।
  • লিগে তার পারফরম্যান্স একজন দক্ষ অলরাউন্ডার হিসেবে তার খ্যাতি আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

রানী মুখার্জির এর বায়োগ্রাফি, জন্ম, বয়স, ওজন, উচ্চতা, বয়ফ্রেন্ড, পরিবার

মোশারফ করিম এর বায়োগ্রাফি: লাইফ স্টোরি, অর্থ, বয়স, জন্ম, উইকি, ফ্যামিলি এবং স্ত্রী

আ খ ম হাসান বয়স, উচ্চতা, ফ্যামিলি, লাইভ স্টাইল এবং অন্যান্য

হুমাইরা হিমু জীবন বৃত্তান্ত, প্রেমিক, পরিবার উইকি

নোরা ফাতেহি বায়োগ্রাফি,নৃত্যশিল্পী, মডেল, অভিনেত্রী ও গায়িকা 

রজতাভ দত্তের অদ্ভুত জীবন কাহিনী

আফরান নিশো বয়স, উচ্চতা, লাইভ স্টাইল, শিক্ষা, প্রেমিকা, পরিবার এবং অন্যান্য

অভিনেত্রী রিয়া শর্মা এর বায়োগ্রাফি, জন্ম, বয়স, ওজন, উচ্চতা, বয়ফ্রেন্ড, পরিবার

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় জীবনী, বয়স, লাভার, পরিবার, বেতন এবং ক্যারিয়ার

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বায়োপিক, জন্ম, বয়স, উচ্চতা, পারিবারিক জীবন, ধন-সম্পদ,ক্রিকেট ক্যারিয়ার  এবং সংক্ষিপ্ত জীবনী

কিলিয়ান এমবাপ্পের জীবনী

আফিফ হোসেন এর বায়োগ্রাফি, জীবনী, জন্ম, বয়স, ওজন, উচ্চতা, বেতন, শিক্ষাগত যোগ্যতা, ক্যারিয়ার, স্ত্রী এবং পরিবার

ক্রিকেটার তামিম ইকবালের ব্যক্তিগত জীবন, ক্যারিয়ার, বয়স, উচ্চতা, জন্ম এবং বৈবাহিক জীবন

রতন টাটার জীবনী এবং কিভাবে কর্মচারী থেকে টাটা কোম্পানির মালিক 

বিরাট কোহলির জীবনী, বয়স, উচ্চতা,প্রেমিকা,পরিবার, স্ত্রী, সন্তান,রেকর্ড এবং ধন-সম্পদ

সাদিও মানে ইতিহাস সেরা অদ্ভুত জীবনী 

রশিদ খান এর ইতিহাস সেরা জীবনী

মোহাম্মদ রিজওয়ান এর জীবনী 

লিওলেন মেসির কৈশোর ,শৈশব, ফুটবল  জীবন এবং পরিবার

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *