গোলাপ ফুল চাষ করার নতুন কৌশল

গোলাপ ফুল চাষ করার নতুন কৌশল-গোলাপ ফুল এর পরিচিতি হচ্ছে সৌন্দর্য আর লাবণ্যের প্রতীক হচ্ছে গোলাপ ফুল। গোলাপ ফুল শীতকালীন মৌসুমী একটি ফুল। বর্তমান ফুল প্রায় বারো মাস চাষ করা হয়ে  থাকে।

এছাড়া এ ফলের চাহিদা বারোমাসি কোন না কোন বিশেষ ক্ষেত্রে খুব বেশি প্রয়োজন হয়ে থাকে। এই ফুল সাধারণত সকল ধরনের মাটির মধ্যেই সচরাচর হওয়ার জন্য বেশ উপযোগী। সকল ক্ষেত্রে সকল পরিবেশে মানিয়ে নিয়ে এই ফুল চাষ করা হয়ে  থাকে। 

আরো দেখুন>>> ভালোবাসার রোমান্টিক পিক 

জলবায়ু ও মাটি

গোলাপ শীতকালের সবচেয়ে উপযোগী একটি ফুল এটি উর্দু শুষ্ক আবহাওয়ায় ভালো হয় না। মূলত যে অঞ্চলগুলো বেশিরভাগ সময় শীতকালের মতো অবস্থান করে সবচেয়ে উপযোগী সেখানকার মাটিতেই গোলাপ ফুল চাষ করা হয়।

22 থেকে 30 ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা আপেক্ষিক আদ্রতা এবং 100 থেকে 150 সেন্টিমিটার ঘর বৃষ্টিপাত গোলাপ ফুল চাষ করার সবচেয়ে উপযোগী। এছাড়া উর্বর দোআঁশ মাটি গোলাপ ফুল চাষের জন্য বিশেষ প্রয়োজন এবং তাপমাত্রার ক্ষেত্রে বিকেল অপেক্ষার সকালের তাপমাত্রা সবচেয়ে উপযোগী ।

আরও দেখুন>>>প্রেমিকার কাছে ক্ষমা চাওয়ার পিক

গোলাপ ফুলের জাত

পৃথিবীতে অনেক রকম গোলাপ ফুলের জাত রয়েছে তার মধ্যে বাংলাদেশের যে জাতগুলো সচরাচর নিয়মিত চাষ করার উপযোগিতা নিচে তুলে ধরলাম। 

মিরান্ডি, পাপা মেলান্ড, ডাবল ডিলাইট, তাজমহল, প্যারাডাইস, ব্লু-মুন, মন্টেজুমা, টাটা সেন্টার, সিটি অব বেলফাষ্ট ইত্যাদি

আরো দেখুন>>> রোমান্টিক ভালোবাসার জন্য প্রজাপতির পিক

 রোপনের সময়

 বাংলাদেশ অক্টোবর থেকে ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত রোপণের উপযুক্ত সময়। 

আরও দেখুন>>> ভালো বাসার মানুষটির জন্য শুভ রাত্রি পিক

বংশবৃদ্ধি

উপরে উল্লেখিত নিয়ম অনুযায়ী গোলাপ ফুল চাষ করা হয়ে থাকলে এর বংশবৃদ্ধি খুব দ্রুত ভাবে বৃদ্ধি পেতে থাকে। সে ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় দৃষ্টি দিতে হবে তা হচ্ছে আপনি যেখানে চাষ করেন বিশেষ করে সকালের রোদ সাত থেকে আট ঘণ্টা যেন ফুলের উপরে পড়ে। এবং বিকেলের রোদ বিশেষ করে গৃষ্ম কালে না পরাটাই সবচেয়ে  উত্তম। 

আরও দেখুন>>>প্রেমিকার জন্য গুড নাইট পিক

টবের মধ্যে গোলাপ চাষ

টবের মধ্যে গোলাপ চাষ করার ক্ষেত্রে বিশেষ কিছু দিক আপনাকে লক্ষ রাখতে হবে তা হচ্ছে তবে কখনোই যেন একাধিক সময় পানি জমে না থাকে সকালের রোদ 6 থেকে 8 ঘণ্টা তবে নিয়মিত পায় খোলামেলা জায়গায় রাখতে হবে।

আরো দেখুন>>>গোলাপ ফুল

গ্রীষ্মকালে সর্বোচ্চ রোগের প্রকোপ থেকে সরিয়ে অন্যথায় রাখতে হবে টবের মধ্যে বিভিন্ন আবর্জনা পরিষ্কার করে রাখতে হবে ইত্যাদি বিষয় খেয়াল করে আপনি টবে গোলাপ চাষ করতে পারেন।

টবের মাটি

টবের মাটি এমন ভাবে তৈরি করতে হবে যাতে বেশ ফাঁকা থাকে  টবের মাটি। ১ ভাগ দো-আঁশ মাটি, ৩ ভাগ গোবর সার বা কম্পোষ্ট, ১ ভাগ পাতা পচা সার, আধ ভাগ বালি (নদীর সাদা বালি হলে ভাল হয়) দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে তাতে এক মুঠো সরিষার খৈল ও এক চামচ চুন মিশিয়ে ১টি ২০ সেঃমিঃ (৮ ইঞ্চি) টবে একমাস রেখে দিতে হবে।

আরো দেখুন>>> প্রেমিকার জন্মদিনের শুভেচ্ছা 

এই একমাস টবেপানি দিয়ে মাটি উল্টে পাল্টে দিতে হয়। এতে মাটির মিশ্রণ ভাল হবে। অনেকে মাটির মিশ্রণে ব্যবহৃত চা পাতা ব্যবহার করেও ভাল ফল পেয়েছেন। টবে নিচের কয়েক সেঃমিঃ পরিমাণ অংশে ইট বা মাটির হাড়ি পাতিলের ভাংগা টুকরা এমন ভাবে বিছিয়ে দিতে হয় যাতে টবের মাটি এগুলোর উপর থাকে। এতে বাড়তি পানি নিকাশের সুবিধা হবে।

আরো দেখুন>>> গার্লফ্রেন্ডের জন্মদিনের শুভেচ্ছা 

টবে চারা বসানোর সময়

টবে মূলত সারাবছর চারা বসিয়ে আপনি গোলাপ ফুল চাষ করতে পারবেন তবে জানুয়ারি ফেব্রুয়ারি মাসে চারা  বসানোর উত্তম সময়।

 

আরো দেখুন>>> ভালোবাসার মানুষটির জন্য জন্মদিনের শুভেচ্ছা

সেচ

এক্ষেত্রে আপনাকে দুই থেকে তিনবার প্রতিদিন  পানি দিতে হবে। 

চুন ও পানি 

প্রতি লিটার পানিতে ১ চামচ গুড়ো চুন পরিস্কার পািনতে ভাল করে গুলে পাতলা ন্যাকড়ায় ছেঁকে প্রতি ৩ মাস পর পর দিতে হয়। চুন-পানি দেবার ১৫ দিনের মধ্যে অন্য কোন সার না দিয়ে শুধু পানি দিতে হয়।

 

উপরে উল্লেখিত নিয়ম অনুযায়ী আপনি খুব সহজে আপনার প্রিয় গোলাপ ফুল চাষ করে নিজে স্বাবলম্বী হতে পারবেন এবং তথা দেশ-জাতি সমাজের গুরুত্বপূর্ণ একটি ভূমিকা পালন করতে পারবেন। Refarens-sportsnet24

কিভাবে সার প্রয়োগ করবেন?

সারের নাম
পরিমাণ/একর প্রতি
প্রয়োগ সময়
কাঁচা গোবর
২০০০ কেজি
জমি তৈরির সময়
জৈব সার
৬০০ কেজি
জমি তৈরির সময়
টিএসপি
৫০ কেজি
জমি তৈরির সময়
এমওপি
২০ কেজি
জমি তৈরির সময়
ইউরিয়া
১০০ কেজি (প্রথম বছর)
চারা লাগানোর ২০ থেকে ২৫ দিন পর
ইউরিয়া
১৫ কেজি
কুঁড়ি বের হওয়ার পূর্বে
দসত্মা
১২ কেজি
জমি তৈরির সময়
খৈল
১৫০ কেজি
জমি তৈরির সময়

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *