roos day

আজ বিশ্ব গোলাপ ফুল দিবস

বিশ্ব গোলাপ দিবস আজ 22শে সেপ্টেম্বর সারা বিশ্বে পালিত হয়। একে বিশ্ব গোলাপ দিবসও বলা হয়। বিশ্ব গোলাপ প্রতি বছর 22 সেপ্টেম্বর ক্যান্সারে আক্রান্তদের মানবিকভাবে চিকিত্সা করতে এবং তাদের দুঃখ ভাগ করে নেওয়ার জন্য পালিত হয়। এই দিনটি উদযাপনের মূল উদ্দেশ্য হল ক্যান্সারের সাথে লড়াই করা মানুষকে বাঁচতে এবং তাদের জীবনে সুখ আনতে অনুপ্রাণিত করা।

এই দিনটি ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য। এটি এমন একটি দিন যা ক্যান্সারের সাথে লড়াই করা লোকেদের মধ্যে আশা এবং উত্সাহ ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য উত্সর্গীকৃত, কারণ প্রায় সমস্ত ক্যান্সারের চিকিত্সায় প্রচুর শারীরিক ব্যথা জড়িত। এছাড়াও ক্যান্সার আপনার মস্তিষ্ক এবং হার্টকেও প্রভাবিত করে। এমন পরিস্থিতিতে ক্যান্সার রোগীদের খুশি রাখা খুবই জরুরি। আর তাই তাদের জন্য প্রতিদিনই হওয়া উচিত ‘রোজ ডে’, বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্ব গোলাপ দিবসের ইতিহাস

বিশ্ব গোলাপ দিবসের ইতিহাস জানুন প্রতি বছর 22শে সেপ্টেম্বর কানাডার মেলিন্ডা রোজের স্মরণে রোজ ডে পালিত হয়। মেলিন্ডা রোজ 12 বছর বয়সে ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। এটি ছিল ব্লাড ক্যান্সারের একটি বিরল রূপ, যার নাম দেওয়া হয়েছিল আসকিনের টিউমার।

চিকিৎসার পর চিকিৎসকরা জানান, মেলিন্ডা রোজ এক সপ্তাহের বেশি বাঁচতে পারবেন না। কিন্তু তিনি 6 মাস বেঁচে ছিলেন। মেলিন্ডা রোজ এই 6 মাসে ক্যান্সারকে পরাজিত করার আশা ছাড়েননি। মেলিন্ডা রোজ অনেকের জীবনকে প্রভাবিত করেছিল।

এই 6 মাস মেলিন্ডা ক্যান্সার রোগীদের সাথে সময় কাটিয়েছেন। তাদের জীবনে কিছু সুখ আনতে ছোট নোট, কবিতা এবং ই-মেইল লিখুন। সুখ এবং আশা ছড়িয়ে দেওয়া তার জীবনের লক্ষ্য হয়ে উঠেছিল।

এই দিনে ক্যান্সার রোগীদের গোলাপ ফুল দেওয়া হয়।বিশ্ব গোলাপ দিবসে গোলাপ ফুল দিয়ে ক্যান্সার আক্রান্ত ও তাদের পরিচর্যাকারীদের বার্তা দেওয়া হয় যে জীবন এখনো শেষ হয়নি। গোলাপ উপহার দিয়ে মানুষ দেখিয়ে দেয় ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তিনি একা নন। দুর্ভাগ্যবশত, চিকিৎসা ও বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ক্যান্সারের সম্পূর্ণ নিরাময় এখনও পাওয়া যায়নি।

এই কারণেই এটা আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে যে আমরা ক্যান্সার রোগীদের সাহায্য করি। আমরা নিশ্চিত করতে পারি যে আমরা ক্যান্সার রোগীদের যত্ন নেওয়ার জন্য আমাদের ভূমিকা পালন করি যাতে ক্যান্সার রোগীরা তাদের সমস্ত শক্তি দিয়ে এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে পারে।

ওয়ার্ল্ড রোস ডে উপলক্ষে কিছু উক্তি

১. ক্যান্সার তোমাক জীবন পাল্টে দিয়েছে, হয়তো ভালোর জন্য। কী জরুরি তা তুমি শিখেছ, কাকে প্রাথমিকতা দিতে হবে তা শিখেছ, এবং সময় নষ্ট না-করতেও শিখেছ। সকলকে বল তুমি তাঁদের ভালোবাসো।– জোয়েল সিয়েগেল

২. পরিবর্তনকে যুক্তিযুক্ত করে তোলার একমাত্র পথ হল, এতে ডুবে যাওয়া, এতে গা ভাসিয়ে দেওয়া…এবং নৃত্যের তালে পা মেলানো। – অ্যালেন ওয়াটস

৩. তুমি ক্যান্সার বলি হতে পার বা ক্যান্সার জয় করতে পার। এটি একটি মানসিকতা। – ডেভ পেলজের।

৪. একবার তুমি আশা-আকাঙ্খা বেছে নিলে, সমস্ত কিছু সম্ভব। – ক্রিস্টোফার রিভ

৫. মানুষের সঙ্গে যা কিছু হতে পারে, তার তুলনায় ব্যক্তির প্রাণশক্তির অনেক বেশি শক্তিশালী। – সি সি স্কট

পৃথিবী সৃষ্টির থেকে শুরু করে আজ অব্দি. প্রকৃতির প্রতি ভালোবাসা ভালোলাগা নেই এমন মানুষ একজন খুঁজে পাওয়া যাবে না। ভালোবাসার উপর একটি নাম হচ্ছে গোলাপ ফুল।

অর্থাৎ এই ভালবাসার মধ্যে নিবিড় ভাবে জড়িয়ে আছে গোলাপ ফুলের  ছোঁয়া। যা কখনোই একটি ছাড়া আরেকটি বাঁচতে পারে না। কিন্তু আমরা যারা বর্তমান সভ্যতার মানুষ তারা কখনোই প্রকৃতির দিকে খেয়াল করার কোন সময়  পাইনা।

এটাই হচ্ছে আমাদের জীবনের এক চরম ব্যর্থতা। আজকে আমরা এমন একটি বিষয় নিয়ে এই পোস্টে আলোচনা করবো যা একটু ব্যতিক্রমধর্মী।

এখানে সকল কথাগুলোই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যেকটি মানুষের জীবনে তাই আপনিও ধৈর্যসহকারে পুরো পোষ্ট পড়লে অবশ্যই এখান থেকে আপনি আপনার মনের অনেক খোরাক পেয়ে যাবেন।

 বর্তমান পৃথিবীতে বিভিন্ন দিবস পালন হয়ে আসছে। যেগুলোকে আমরা অত্যন্ত গুরুত্বের সহিত পালন করে থাকি। কিন্তু প্রকৃতির দান একটি গোলাপ ফুল তার নির্দিষ্ট একটি দিনে দিবস রয়েছে যা প্রায় বেশিরভাগ মানুষ আমরা এই দিবস সম্পর্কে কিছুই জানিনা।

আমি মনে করি এটা আমাদের জানা বিশেষ প্রয়োজন কারণ হচ্ছে যখন আপনি প্রকৃতির ভালোবাসার সাথে আপনার জীবন চিন্তাভাবনা ধ্যান-ধারণা মিলেমিশে একাকার হয়ে যাবে ঠিক তখনই আপনি একজন পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে বর্তমান এই প্রচলিত সমাজে পরিচিতি লাভ  করবেন।

 তাই আসুন আজকে আমরা গোলাপ ফুল দিবস সম্পর্কে কিছু মূল্যবান কথা উপস্থাপন করব অবশ্যই আপনি মনোযোগের সহিত পড়বেন।

বিশ্ব গোলাপ ফুল দিবসের গুরুত্বপূর্ণ বাণী

গোলাপ ফুল দিবসের কিছু অজানা কথা যা আপনার আমার বাস্তব জীবনের প্রেক্ষাপটে অবশ্যই জানতে হবে।

  1. বিশ্ব গোলাপ ফুল দিবস এর সঠিক তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাখ্যা হচ্ছে যে, আজকে এই পৃথিবীতে ভালোবাসা আছে বলেই এই পৃথিবী এত  সুন্দর। আর এই সুন্দরের মাঝে সবচাইতে প্রধান ভূমিকা পালন করে থাকে সকল ক্ষেত্রে গোলাপ ফুল। গোলাপ ফুল একজন মানুষের মনের বিভিন্ন যন্ত্রনা কষ্ট ক্ষণিকের জন্য হলেও দূর করে থাকে যা কখনোই পৃথিবীতে এমন কোন ডাক্তার বিশেষজ্ঞ নেই যেটা  করা সম্ভব।

2. বর্তমানে পৃথিবীতে আধুনিক বিজ্ঞানের যুগে এসে আমরা বসবাস করেও  একটি বিষয় পরিষ্কার এবং স্পষ্ট ভাষায় প্রমাণিত হয়েছে যে, প্রত্যেকটি মানুষ আমরা সবাই সুন্দরের পূজারী। অর্থাৎ সুন্দর সকল কিছুই আমরা ভালোবেসে থাকি। এবং তাদের প্রতি একটু দুর্বলতা থাকাটা হচ্ছে  স্বাভাবিক। আর এই সুন্দরের  প্রধান ভূমিকা পালন করে থাকে গোলাপ ফুল।

3.  বিশ্ব গোলাপ ফুল দিবস প্রতি বছর পালিত হয়ে থাকে ইংরেজি ফেব্রুয়ারি মাসে। অর্থাৎ এই ফেব্রুয়ারি মাস হচ্ছে গোলাপ ফুলের মাস। যার বাংলা মাস হচ্ছে ফাল্গুন  মাস। আমরা সাধারণত বিভিন্ন উদ্দেশ্য নিয়ে বিভিন্ন দিবস পালন করে থাকি কিন্তু গোলাপ ফুল দিবস কেন পালন করা হয় তার প্রধান কারণ আমরা নিচে ব্যাখ্যা করলাম, এই বিষয়ে অনেক অভিজ্ঞ এবং বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে প্রকাশিত হয়  যে, একজন মানুষের সুস্থ থাকার প্রধান একটি মাধ্যম হচ্ছে গোলাপ ফুল দেখে এবং পদ্ধতি অনুযায়ী ঔষধ সেবন করলে আমাদের বিভিন্ন ক্যান্সার রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

 4. তাই আসুন আমরা যত দিবস পালন করে থাকি না কেন অত্যন্ত গুরুত্বের সহিত এই গোলাপ ফুল দিবস পালনের ক্ষেত্রে যথেষ্ট উদ্যোগী হই এবং আরো অন্য জনকে উদ্যোগী হওয়ার জন্য উৎসাহ প্রদান করে  থাকি। সে ক্ষেত্রে আমরা অন্তত সুস্থ সুন্দর এবং স্বাভাবিক জীবন ফিরে পেতে পারি।

5. বিশ্ব গোলাপ ফুল দিবস মূলত প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি মাসের 7 তারিখে পালিত হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে আমরা ধরে নিতে পারি যে, আগামী বছর অর্থাৎ 2022 সালের ফেব্রুয়ারি মাসের 7 তারিখে গোলাপ ফুল দিবস পালন করতে পারব ইনশাআল্লাহ। এছাড়া এই মাসে এই গোলাপ ফুল কে কেন্দ্র করে আরেকটি দিবস পালিত হয় তা হচ্ছে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস (ভ্যালেন্টাইন ডে)।

উপসংহার,

পরিশেষে, আমার একটি বাণী তা হচ্ছে  যে, আমরা যারা প্রতিটি মানুষ নির্ধারিত সময়ের জন্য এই পৃথিবীতে এসে থাকি তাদের সকলের প্রতি অবশ্যই যে কাজগুলি ভালো তা করার দায়িত্ব এবং কর্তব্য রয়েছে। সেক্ষেত্রে আমি নিঃসন্দেহে মনে করে থাকি যে, অন্তত আমাদের এই ভালবাসার রানী ফুলের রানী গোলাপ ফুল দিবস মন থেকে পরিবার তথা সমাজের জাতি কে ভালবেসে এই দিবসের বিভিন্ন শুভেচ্ছা বাণী স্ট্যাটাস সকল আপনজনদের সাথে বিনিময় করে থাকি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *