pabna train2

ঢাকা টু পাবনা ট্রেন নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা টু পাবনা ট্রেন নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া আপনারা যারা বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে পাবনা ট্রেনের নতুন সময়সূচী সম্পর্কে অনুসন্ধান করছেন। তাদের জন্য সকল নতুন আপডেট তথ্য এখানে উপস্থাপন করলাম।

এছাড়া বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে যেকোনো স্থানে যাতায়াতের জন্য সবচেয়ে উন্নত এবং দুর্ঘটনা মুক্ত মাধ্যমটি হচ্ছে ট্রেন। তাই বর্তমান সকল যাত্রী যাতায়াত করতে সবচেয়ে অধিক পছন্দ করে থাকেন ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করা।

ঢাকা থেকে পাবনা ট্রেনের মাধ্যমে যাওয়ার জন্য আপনি ইচ্ছা করলেই ঘরে বসে অনলাইনে সময়সূচি দেখে আপনার কাঙ্খিত টিকেট সংগ্রহ করে নিতে  পারেন।

আপনারা যারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কাজের উদ্দেশ্যে ঢাকা থেকে পাবনা যাতায়াত করার জন্য বিভিন্ন সাইটে অনুসন্ধান করে থাকেন। তাদের জন্য একটি সুখবর হচ্ছে খুব সহজভাবে সুন্দর করে আপনারা ঢাকা থেকে  পাবনা কিভাবে যাবেন তার বিস্তারিত তথ্য আমরা আপনার জন্য উপস্থাপন করলাম।

pabna train1

Contents hide
7 পরিশেষে,

ঢাকা টু পাবনা ট্রেন নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

আপনারা যারা প্রতিনিয়ত ঢাকা থেকে পাবনা ট্রেনে যাতায়াত করে থাকেন তাদের জন্য এই পোস্ট এখানে আপনাদের জন্য বর্তমান সময়ে কোন কোন ট্রেন ঢাকা থেকে পাবনা যাতায়াত করে থাকে তার সকল নতুন আপডেট সময়সূচী উল্লেখ করলাম।

ট্রেনের যাতায়াতের ক্ষেত্রে সময়সূচী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।যে ক্ষেত্রে আমরা প্রতিনিয়ত সময়ের দিক থেকে বিভিন্নভাবে হয়রানি শিকার হয়ে থাকি । অর্থাৎ ট্রেনের নির্ধারিত সিডিউল অনুযায়ী যাতায়াত করে থাকে একসময়।আবার বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিভিন্নভাবে সময় উল্লেখ করা থাকে বিভিন্নভাবে।

তাই প্রতিটি মানুষের সময়ের মূল্য অপরিসীম সে ক্ষেত্রে যাতে করে কোনভাবেই হয়রানির শিকার না হন। উল্লেখিত বিষয়ে দৃষ্টি রেখে অত্যন্ত সুনিদৃষ্ট সময় অনুযায়ী ট্রেনের সময়সূচি প্রকাশ করা হল। যা প্রথমে গুরুত্বসহকারে দেখে নিবেন। 

আরওপড়ুন>>>ঢাকা থেকে পঞ্চগড় ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

আরওপড়ুন>>>ঢাকা থেকে নাটর ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

আরওপড়ুন>>>ঢাকা থেকে সিলেট ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

আরওপড়ুন>>>ঢাকা থেকে টাঙ্গাইল ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

আরওপড়ুন>>>ঢাকা থেকে গাইবান্ধা ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা – ঈশ্বরদী

ট্রেনের নাম: সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস
ট্রেন নং: ৭৭৬
ছাড়ার সময় : বিকাল ৫ টা
পৌঁছার সময় : রাত ১২ টা
বন্ধের দিন: শনিবার

ট্রেনের নাম: সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেন
নং: ৭২৬
ছাড়ার সময় : সকাল ৬.২০ মি
পৌঁছার সময় : দুপুর ১২.৩৫ মি
বন্ধের দিন: বুধবার

ট্রেনের নাম: চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন
নং ৭৬৪
ছাড়ার সময় : সন্ধ্যা ৭.০০ মি.
পৌঁছার সময় : রাত ১২.২৫ মি
বন্ধের দিন: সোমবার

ট্রেন নং নাম ছুটির দিন থেকে প্রস্থান প্রতি আগমন
715 কাপোতাক্ষ এক্সপ্রেস শনিবার ঈশ্বরদী 11:55:00 এএম রাজশাহী 1:10:00 অপরাহ্ণ
716 কাপোতাক্ষ এক্সপ্রেস শনিবার ঈশ্বরদী 3:30:00 অপরাহ্ন খুলনা 8:50:00 অপরাহ্ণ
725 সুন্দরবন এক্সপ্রেস মঙ্গলবার ঈশ্বরদী 12:35:00 এএম Dhakaাকা 5:40:00 এএম
726 সুন্দরবন এক্সপ্রেস বুধবার ঈশ্বরদী 11:30:00 এএম খুলনা 4:20:00 অপরাহ্ণ
727 রুপশা এক্সপ্রেস বৃহস্পতিবার ঈশ্বরদী 12:50:00 অপরাহ্ন সৈয়দপুর 5:15:00 অপরাহ্ণ
728 রুপশা এক্সপ্রেস বৃহস্পতিবার ঈশ্বরদী 12:50:00 অপরাহ্ন খুলনা 6:00:00 অপরাহ্ণ
747 সিমন্ত এক্সপ্রেস না ঈশ্বরদী 2:00:00 এএম সৈয়দপুর 6:20:00 এএম
748 সিমন্ত এক্সপ্রেস না ঈশ্বরদী 11:35:00 অপরাহ্ন খুলনা সকাল সাড়ে ৪ টা

Refarens-sportsnet24

উপরে উল্লেখিত সময়সূচি অনুযায়ী ট্রেনটি সার্ভিস দিয়ে থাকে অর্থাৎ সপ্তাহে 6 দিন যাতায়াত করে থাকে এবং নির্দিষ্টভাবে একদিন বন্ধ থাকে।

ঢাকা থেকে পাবনা ট্রেনের নির্ধারিত টিকেট মূল্য

ঢাকা থেকে পাবনা যাওয়ার জন্য নিচের আমরা নির্ধারিত টিকেটের একটি মূল্য উল্লেখ করলাম। এখান থেকে আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী পছন্দ অনুযায়ী নির্ধারিত টিকেট বুকিং দিতে পারবেন অনলাইনের মাধ্যমে।

৭৯১/৭৯২ নং বনলতা আন্তঃনগর ট্রেনের তাড়ার তালিকা (ভ্যাট সহ)

ঢাকা থেকে পাবনা চাটমোহর এর ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

আপনারা যারা ঢাকা থেকে পাবনা ট্রেনের মাধ্যমে নিয়মিত যাতায়াত করে থাকেন। তাদের জন্য চাটমোহর ইসটিসনের নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করা হলো।উক্ত ভাড়ার তালিকা থেকে আপনার পছন্দ এবং সামর্থ্য অনুযায়ী নির্ধারিত টিকিট বুকিং দিয়ে আপনি ট্রেনে আরামদায়ক উপায় পাবনার উদ্দেশ্যে যাতায়াত করতে  পারেন। 

এসি বার্থ

৫২৭ টাকা

এসি সিট

৩৭৪ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস (বার্থ)

ফার্স্ট ক্লাস (সিট)

২২৫ টাকা

স্নিগ্ধা

২৬৫ টাকা

শোভন চেয়ার

১৩৫ টাকা

শোভন

১১৫ টাকা

সুলভ

ঢাকা থেকে ঈশ্বরদী ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

ঢাকা থেকে পাবনা ট্রেন জার্নি অত্যন্ত আরামদায়ক এবং স্বল্প সময়ে খুব দ্রুত যাতায়াত করা যায় ট্রেনের মাধ্যমে। প্রধান কারণ ট্রেনে যাতায়াত করার ক্ষেত্রে পরিবহনের তুলনায় কোন জ্যামে আটকে থাকতে হয় না। সে ক্ষেত্রে অল্প সময়ে আপনি ঢাকা থেকে ঈশ্বরদী ট্রেনের যাতায়াত করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনার সামর্থ্য এবং পছন্দ অনুযায়ী নিচের সারণি থেকে নির্ধারিত মূল্যের টিকেট সংগ্রহ করে যাতায়াত করতে পারেন।

এসি বার্থ

৬১৬ টাকা

এসি সিট

৪২৬ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস (বার্থ)

৩৭০ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস (সিট)

২৫০ টাকা

স্নিগ্ধা

২৮৮ টাকা

শোভন চেয়ার

১৪৫ টাকা

শোভন

১২০ টাকা

সুলভ

ঢাকা থেকে পাবনা ঈশ্বরদী বাইপাস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

আপনারা যারা ঢাকা থেকে পাবনা ঈশ্বরদী বাইপাস ট্রেনের যাতায়াত করে থাকেন তাদের সুবিধার জন্য নিচের সারণিতে নির্ধারিত মূল্যের ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করা হলো আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী টিকেট বুকিং দিয়ে অত্যন্ত নিরাপদ সহীদ ট্রেনে যাতায়াত করতে পারেন।

এসি বার্থ

৬৩৩ টাকা

এসি সিট

৪০৩ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস (বার্থ)

ফার্স্ট ক্লাস (সিট)

২৪০ টাকা

স্নিগ্ধা

২৮৮ টাকা

শোভন চেয়ার

১৬০ টাকা

শোভন

১২০ টাকা

সুলভ

সড়ক পথের মাধ্যমে কিভাবে ঢাকা টু পাবনা যাতায়াত করবেন

সড়কপথে বাসে চড়ে যেতে চাইলে যেতে হবে গাবতলী আন্ত:জেলা বাস টার্মিনালে। এখানে পাবনাগামী অনেক বাসের কাউন্টার রয়েছে। বাসগুলো এখান থেকে যাত্রা করে। তবে কিছু কিছু পরিবহন সংস্থা কল্যাণপুর খাজা মার্কেট, টেকনিক্যাল মোড় ইত্যাদি জায়গায় কাউন্টার বসিয়েছে। খাজা মার্কেট থেকে বাস যাত্রা না করলেও টেকনিক্যাল মোড় থেকে বেশ কয়েকটি পরিবহন সংস্থার বাস ছেড়ে যায়।

এই বাসগুলো অবশ্য গাবতলী থেকেও যাত্রী নেয়। আবার কিছু পরিবহন সংস্থার বাস নারায়ণগঞ্জ থেকে থেকে যাত্রা করে উত্তরা, আবদুল্লাহপুর হয়ে যাতায়াত করে। নারায়ণগঞ্জ, মালিবাগ, আবদুল্লাহপুর প্রভৃতি জায়গায় এসব বাসের কাউন্টার রয়েছে, এসব জায়গায় যাত্রী ওঠা-নামার সুযোগও রয়েছে। বলাবাহুল্য সব বাসই যমুনা সেতু হয়ে যাতায়াত করে।

যমুনা সেতুর দু’পারে টাঙ্গাইল এবং সিরাজগঞ্জ অংশে বেশ কয়েকটি রেষ্টুরেন্ট রয়েছে।  পাবনাসহ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন গন্তব্যের বাসগুলো এসব রেষ্টুরেন্টে যাত্রাবিরতি করে। রেষ্টুরেন্টগুলোয় ফ্রি টয়লেট সুবিধা থাকে। বিভিন্ন ধরনের হালকা খাবার ছাড়াও ভাত সহকারে দুপুর বা রাতের আহার সেরে নেয়া যায় এখান থেকে। যাত্রা বিরতির সময়কাল ১০ থেকে ১৫ মিনিট হয়।

পরিশেষে,

আমি মনে করি, বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে সবচাইতে সকল দিক থেকে বিবেচনা করে আরামদায়ক যাতায়াতের অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে ট্রেন জার্নি তাই আপনিও যেকোনো স্থানে যাতায়াতের ক্ষেত্রে ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করে নিজে ভালো থাকুন এবং পরিবারকে ভালো রাখুন।

ঢাকা থেকে দিনাজপুর ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে লালমনিরহাট ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে চিলাহাটি ট্রেনের নির্ধারিত সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে জয়পুরহাট ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে পার্বতীপুর ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

পার্বতীপুর থেকে ঢাকা ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে টাঙ্গাইল ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে রংপুর ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে রাজশাহী ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে গাইবান্ধা ট্রেনের নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া

ঢাকা থেকে  বগুড়া ট্রেনের নির্ধারিত নতুন সময়সূচী এবং ভাড়া 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *