চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান এর ফ্লাইট ২০২২

বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তি তথা আধুনিক এই যুগে সকল কাজের ক্ষেত্রে মানুষ অত্যন্ত দ্রুততার কাজ সম্পন্ন করতে চায় এবং সেক্ষেত্রে তার সকল কার্যাবলী সম্পাদন করে থাকে বিশেষ করে যাতায়াতের ক্ষেত্রে।

চট্টগ্রাম টু ঢাকা পরিবহনের মধ্যে দিয়ে যাতায়াত করে থাকলে সে ক্ষেত্রে সবচেয়ে কঠিন খারাপ অবস্থার মধ্যে সম্মুখীন হতে হয়। চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান এর মাধ্যমে যেতে সময় লাগে 40 থেকে 50 মিনিট।

ধারণাঃ

1972 সালের 7 ই মার্চ থেকে  চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিভিন্ন ফ্লাইট নিয়মিত যাতায়াত করে থাকে। এছাড়া ঢাকার পরেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরী হিসেবে ধরা হয় চট্টগ্রামকে।

বাংলাদেশের বাণিজ্যের ক্ষেত্রে প্রবেশদ্বার বলা হয়ে থাকে  চট্টগ্রামকে।এছাড়া  চট্টগ্রাম টু ঢাকা এই দুই শহরের মাঝখানে দূরত্বটুকু খুবই গুরুত্বপূর্ণ সময়ের মধ্যে নির্ভর  করে।

পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বড় সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত চট্টগ্রামে অবস্থিত। এছাড়া এখানে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ সেনা নৌ ও বিমানবাহিনীর সবচেয়ে বড় প্রধান কার্যালয় গুলি এখানে অবস্থিত।

তাই সকল দিক থেকে সবচেয়ে যুগোপযোগী মাধ্যম হচ্ছে বিমানের মাধ্যমে যাতায়াত  করা।

চট্টগ্রাম টু ঢাকা সড়ক পথের দুরবস্থা

চট্টগ্রাম টু ঢাকা যাওয়ার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সংখ্যক যাত্রী বিভিন্ন পরিবহনের মাধ্যমে যাতায়াত করে থাকে। সবচাইতে ব্যস্ততম রাস্তা হচ্ছে এই রাস্তা। সকল ক্ষেত্রে সকল ধরনের পরিবহন নিয়মিত 24 ঘন্টা যাতায়াত করে থাকে এই রাস্তায়।

এছাড়া  চট্টগ্রাম টু ঢাকা দূরত্ব মাত্র 265  কিলোমিটার। যেখানে পরিবহনের মাধ্যমে তিন থেকে চার ঘণ্টা সময় লাগার কথা। কিন্তু সর্বোচ্চ জ্যামের কারণে সেখানে 8 থেকে 10 ঘণ্টা সময় লেগে যায়। এক্ষেত্রে যাত্রীদের ভোগান্তি পোহাতে হয়। 

চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান যাত্রা আকাশপথে ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা

স্বাধীনতার পর থেকে অর্থাৎ 1972 সালের 7 ই মার্চ থেকে নিয়মিত বিভিন্ন ফ্লাইট  আকাশপথে যাতায়াত করে থাকেন। এছাড়া তখনকার সময় বিমানের মাধ্যমে যাতায়াত করতে গেলে অনেকটা স্বপ্নের মতো মনে হতো এবং যাত্রীদেরকে ভাড়া গুনতে হতো সর্বোচ্চ টাকা।

এরকম পরিস্থিতির মধ্যে 2005 সাল পর্যন্ত যাত্রীদেরকে সর্বোচ্চ ভাড়া দিয়ে যাতায়াত করতে হতো কিন্তু 2005 সালের পর থেকে বর্তমান সময় অব্দি যাত্রীদের নাগালের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী খুব সহজেই অতিদ্রুত  চট্টগ্রাম টু ঢাকা যাতায়াত করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনার সময় লাগবে মাত্র 40  মিনিট।

প্রাইভেট মালিকানাধীন বিমান সংস্থা

2005 সালের পর থেকে বাংলাদেশের প্রাইভেট মালিকানাধীন বিমানসংস্থা জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে। এই বিমানগুলোর  প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে যে,

এরা খুব সহজেই যাত্রীদেরকে তুলনামূলক কম ভাড়া গ্রহণ করে তাদেরকে সর্বোচ্চ সুযোগ সুবিধা দিয়ে চট্টগ্রাম টু ঢাকা সার্ভিসগুলো দিয়ে থাকে।

প্রাইভেট মালিকানাধীন বিমানগুলো হচ্ছে, 

  1. নভোএয়ার, 
  2. রিজেন্ট এয়ারওয়েজ এবং 
  3. ইউ এস বাংলা এয়ারলাইনস।

উপরে উল্লেখিত এই তিনটি বিমানসংস্থার নিয়মিত  চট্টগ্রাম টু ঢাকা ফ্লাইটে যাতায়াত করে থাকে।

চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান এর ফ্লাইট সমূহ

সপ্তাহে প্রায় প্রতিদিনই চট্টগ্রাম টু ঢাকা ফ্লাইট সমূহ যাতায়াত করে থাকে এছাড়া আকাশপথে সপ্তাহে 21 থেকে 30টি।  চট্টগ্রাম টু ঢাকা ফ্লাইট সমূহ যেগুলো নিয়মিত যাতায়াত করে থাকে তার নির্দিষ্ট একটি বর্ণনা নিচে উল্লেখ করলাম।

  1. নভোএয়ার= 5 থেকে 6 টি
  2. রিজেন্ট এয়ারওয়েজ= 3 থেকে 7 টি
  3. ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স= 5 থেকে 6 টি 

 চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান ভাড়া সমূহ

বিমান ভাড়া মূলত বিশেষ কিছু সময়ের ক্ষেত্রে সর্বদা পরিবর্তনশীল। তাই বর্তমান মূল্য অনুযায়ী বারা সমূহ নিচে উপস্থাপন করা হলো

1. নভোএয়ার=  

2500 টাকা (স্পেশাল প্রমো)

9200 টাকা ( ফ্লেক্সিবল) 

2. রিজেন্ট এয়ারওয়েজ=

3000 টাকা (সুপার সেভার )

8000 টাকা (বিজনেস ফ্লেক্সিবল)

3. ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স=

2500  টাকা (সর্বনিম্ন) 

8700 টাকা (সর্বোচ্চ)

চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান টিকেট কিভাবে সংগ্রহ করবেন

চট্টগ্রাম টু ঢাকা বিমান নিয়ে যাতায়াত করার জন্য আপনি আপনার আইডি কার্ড অথবা অফিসের কোনো কার অথবা যে কোন গুরুত্বপূর্ণ কার্ড দিয়ে আপনি টিকেট সংগ্রহ করতে পারেন।

এছাড়া যারা ডিসকাউন্ট পেতেচান তারা ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে টিকেট সংগ্রহ করতে পারেন ।এছাড়া আপনি ট্রাভেল এজেন্সির একটি নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট ঠিকানা উল্লেখ করলাম এখান থেকে আপনি খুব সহজেই অনলাইনে টিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন। 

লাগেজ সংক্রান্ত তথ্য

নিয়ম অনুযায়ী ইকোনোমি যাত্রীরা প্রত্যেকে 20 কেজি মালামাল বহন করতে পারবেন। বিজনেস ক্লাসের যাত্রীরা  চেক কৃত 30 কেজি মালামাল বহন করতে পারবেন।এছাড়া এর চেয়ে বেশি মালামাল বহন করতে গেলে আপনাকে অবশ্যই নির্ধারিত ফি দিতে হবে। 

অভ্যন্তরীণ বিমান ভাড়া এয়ারলাইনস ও ফ্লাইট এর সময়সূচী

 নভোএয়ার ফ্লাইট সিডিউল দেখুনঃ

www.flynovoair.com/travelinfo/flight_schedules

রিজেন্ট এয়ারওয়েজ ফ্লাইট সিডিউল দেখুনঃ

 www.biman-airlines.com/schedule

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ফ্লাইট সিডিউল দেখুনঃ

০১৭৭৭৭৭৭৮০০ অথবা ১৩৬০৫ নম্বরে।

আরোও দেখুন >>>ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ট্রেনের নতুন সময়সূচী ও ভাড়া

আরোও দেখুন >>>ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পরিবহন সার্ভিস এর কাউন্টার নাম্বার এবং মোবাইল নাম্বার

আরোও দেখুন >>>চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা পরিবহন সার্ভিস এর কাউন্টার নাম্বার এবংমোবাইল নাম্বার

পরিশেষে,

ঢাকা টু চট্টগ্রাম যাতায়াতের আকাশ পথেই শুধু নয় আপনারা ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করতে পারবেন এবং উন্নত পরিবহনের মাধ্যমে যাতায়াত করতে পারবেন যার গুরুত্বপূর্ণ লিঙ্কগুলি উপরে তুলে ধরা হলো। আপনাদের বিশেষ সুবিধার জন্য। ঢাকা টু চট্টগ্রাম যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে আকাশ পথে যাতায়াত অর্থাৎ ঢাকা হচ্ছে বাংলাদেশের রাজধানী প্রাণকেন্দ্র আবার চট্টগ্রাম হচ্ছে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক প্রবেশদ্বার এবং পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে অবস্থিত।ঢাকা টু চট্টগ্রাম আকাশ পথেই হোক আপনার সর্বশ্রেষ্ঠ আরামদায়ক ভ্রমণ। 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *